Breaking News
Home / জাতীয় সংবাদ / রাজধানীর সরকারী আলিয়া মাদরাসার মাঠ অবৈধ দখলের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

রাজধানীর সরকারী আলিয়া মাদরাসার মাঠ অবৈধ দখলের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

মমিন উদ্দিন, ঢাকা: পুরান ঢাকার বকশি বাজার সরকারী মাদরাসা-ই-আলিয়ার মাঠ কারা কর্তৃপক্ষের অবৈধ দখল করার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। আজ সকাল ১০টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত এ মানববন্ধন চলে।মানববন্ধনে অংশগ্রহন করে সরকারি মাদরাসা-ই-আলিয়া,ড.শহীদুল্লাহ কলেজ,নবকুমার ইন্সটিটিউট এবং তিব্বিয়া হাবিবীয়া ইউনানী কলেজের সকল শিক্ষার্থী
বৃন্দ এবং এলাকাবাসী।

দীর্ঘদিন ধরে কারা অধিদপ্তর এ মাঠ অবৈধভাবে দখল করার প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছিলো।দখল প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে মসজিদ স্থাপন করার চেষ্টা করে।মসজিদে কে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে মাঠ দখলের প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছে কারা অধিদপ্তর।যদিও মাঠের দক্ষিণ পূর্ব কোনে এবং মাঠের উত্তর পূর্ব কোনে দুটি মসজিদ রয়েছে।এমনকি আলিয়া মাদরাসার আবাসিক হল এবং ক্যাম্পাসেও দুটো মসজিদ রয়েছে,এবং তাতে জুমার নামাজ আদায় করা হয়।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন মাদরাসা-ই-আলিয়া এবং বৃহত্তর লালবাগ থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাগর আহমেদ শাহিন,আলিয়া মাদরাসা ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন নিলয়,যুবলীগ নেতা জসীম,নবকুমার ইনস্টিটিউটের শিক্ষকবৃন্দ এবং মাঠ রক্ষা কমিটির সদস্য মাহবুব হোসেন, তুহিন,
আজিম,কাওসার,হাসান মাহমুদ এবং রাসেল।

মানববন্ধনে সাগর আহমেদ শাহিন বলেন,দীর্ঘ ৫৫বছর যাবত এই মাঠ আলিয়া মাদরাসার প্রশাসনের নিয়ন্ত্রিত।এমনকি কেন্দ্রীয় কারাগার ২০০৭ সালে স্বারক বিবিধ নং ১/২০০৭/১১৯০ এর মাধ্যমে আলিয়া মাদরাসার মালিকানা স্বীকার করে মাঠে অনুষ্ঠানের আবেদন করে এবং মাদরাসা প্রশাসনের অনুমতি সাপেক্ষে অনুষ্ঠান পালন করে।

সাগর আহমেদ বলেন, মাঠকে দখলমুক্ত করার লক্ষ্যে এলাকাবাসীর অংশগ্রহণ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন।এবং
ভবিষ্যতে মাঠকে অবৈধ দখল করার পায়তারা করলে এর পরিনাম ভয়াবহ হবে বলে হুঁশিয়ারি প্রদান করেন।

উল্লেখ্য,২০০৯ বিডিআর বিদ্রোহ মামলা পরিচালনায় ছয় মাসের জন্য তৎকালীণ আইনপ্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম আলিয়া মাদরাসা প্রশাসনের অনুমতি এবং বিচার কার্য শেষে মাঠ এবং আদালতে ব্যবহৃত কক্ষ আলিয়া মাদরাসা প্রশাসনকে দেয়ার অঙ্গীকার সাপেক্ষে বিশেষ আদালত স্থাপন করেন।

এই সুযোগে মাঠের মালিকানা দাবী করে বসে কারা অধিদপ্তর। যুগ্ম জেলা জজ আদালত-৫ এ দেওয়ানী মোকদ্দমা ৩৮৩/২০১০ নং মামলা করে।যা এখনো নিষ্পত্তি হয়নি।মামলা প্রক্রিয়াধীন থাকা অবস্থায় মাঠ দখল করে অবৈধ স্থাপনা তুলে মাঠ দখলে যাবার চেষ্টা করছে কারা অধিদপ্তর।

Facebook Comments

Check Also

অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় কুতুবউদ্দিনের উপর হামলা: মানববন্ধনে বক্তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক কুতুব উদ্দিন একজন সদালাপী, ভদ্র ও নম্র একজন শিক্ষানবীশ আইনজীবী। মেয়াদ উত্তীর্ণ একটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *